সালাতের কবিতা


বিলাল হোসাইন নূরী

 ০১.

 শিশিরভেজা আঙিনাতে শিউলী যখন হাসে-

 বাতাস ফুঁড়ে মুয়াজ্জিনের আজান উড়ে আসে।

 ফুল পাখিদের কণ্ঠে দোলে ফজর ফজর সুর-

গীতল হাওয়ার শীতল ডানায় যায় তা বহুদূর।

 ০২.

 খুললো যখন আবীরমাখা সূর্যোদয়ের খাতা-

 মিষ্টি আলোর ঝলকানিতে নাচে সবুজ পাতা।

মাথার ওপর দাঁড়ায় রবি, আবার ঝুঁকে পড়ে-

ঠিক তখনই জোহর আসে প্রতি ঘরে ঘরে।

০৩.

ধীরে ধীরে জ্যোতির থালা পম্চিমে যায় হেঁটে-

আকাশ-নদী, মেঘ-হিমালয়, বাতাস কেটে কেটে।

চোখ ধাঁধাঁনো রোদরা হঠাৎ কোমলমতি হয়-

আসর এসে হলুদ ঠোঁটে মনের কথা কয়।

০৪.

আর কতদূর হাঁটবে মামা, আর কতদূর পাড়ি-

ঢের হয়েছে, এবার তবে ফিরতে হবে বাড়ি।

ডুবসাঁতারের মত যখন ডুবলো আগুন-

জিভ- সু স্বাগতম, সু স্বাগতম, এসেছে মাগরিব।

০৫.

সূর্য গেলো নিজের দেশে দিন পোহাল দিন-

আকাশ জুড়ে গোধূলি রঙ, শুভ্র-শাদার চিন-

সেই শাদাও ক্ষণিক পরে উধাও একেবারে-

এখন হল ইশার পালা, রুখবে কে আর তারে।

Advertisements

About সম্পাদক

সম্পাদক - ইসলামের আলো
This entry was posted in ইসলাম. Bookmark the permalink.

মন্তব্য করুন

Fill in your details below or click an icon to log in:

WordPress.com Logo

You are commenting using your WordPress.com account. Log Out / পরিবর্তন )

Twitter picture

You are commenting using your Twitter account. Log Out / পরিবর্তন )

Facebook photo

You are commenting using your Facebook account. Log Out / পরিবর্তন )

Google+ photo

You are commenting using your Google+ account. Log Out / পরিবর্তন )

Connecting to %s